বুধবার, ২০ জুন ২০১৮ ০৯:৪৪:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বিশ্বের সবচেয়ে প্রবীণ প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন মাহাথিরবজ্রপাতে মৃত্যু থেকে রক্ষা পেতে হলে করনীয় কি ?পটুয়াখালীর তরুণের চালকবিহীন গাড়ি আবিষ্কার স্পেনে ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ঘোষনাতাবলিগ জামাতের সাদ পন্থী ও তার বিরোধী গ্রুপের সংঘর্ষডিইউজে নির্বাচনে গনি - শহিদ পরিষদের অবিস্মরনীয় জয়কোটা সংস্কার আন্দোলনের বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না: ডাকসুর সাবেক চারভিপি।সন্তান পেটে রেখেই সেলাই, দুই লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দাবিসকল সরকারি চাকরি থেকে স্বাধীনতাবিরোধীদের সন্তানদের বরখাস্তের দাবিদি স্টুডেন্ড’স ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন ঢাকা মহানগরী উত্তরের বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান সম্পন্ন।
মঙ্গলবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭, ০৮:৩০:৪৯
Zoom In Zoom Out No icon

‘ময়নামতি’ নয় ‘কুমিল্লা’ নামেই বিভাগ চায় কুমিল্লাবাসী

‘ময়নামতি’ নয় ‘কুমিল্লা’ নামেই বিভাগ চায় কুমিল্লাবাসী

২০১৫ সালের ২৫ মে কুমিল্লা টাউন হলে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মবার্ষিকীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কুমিল্লাকে বিভাগ করার বিষয়ে আশ্বাস দিয়েছিলেন। এরপর পেরিয়ে যায় অনেক সময়। কিন্তু মঙ্গলবার একনেকের বৈঠকে ‘কুমিল্লা’ বিভাগের নাম কুমিল্লার পরিবর্তে ‘ময়নামতি’ নামেই নামকরণ করা বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রীর সিদ্ধান্তের বিষয়ে কুমিল্লার সচেতন মহলে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও বিষয়টি ভাইরাল হয়েছে। দেশের প্রাচীনতম ও বৃহৎ জেলা ‘কুমিল্লা বিভাগ’ নাম বাদ দিয়ে  ‘ময়নামতি বিভাগ ’নামে প্রস্তাবিত বিভাগ ঘোঘণা না করার দাবি জানানো হয়। মঙ্গলবার বিকেলে কুমিল্লা মহানগরীর টাউন হল মাঠের সামনে এই দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে জেলার সাংবাদিক ও সচেতন নাগরিক সমাজ।

জানা যায়, মঙ্গলবার রাজধানীর শেরে বাংলা নগরস্থ এনইসি সম্মেলন কক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকের পর পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সাংবাদিকদের জানান, ‘প্রস্তাবিত ‘কুমিল্লা’ বিভাগের নাম ‘ময়নামতি’ নামেই নামকরণ করার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী তাকে সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন ‘ভবিষ্যতে কোনো জেলার নামে আর বিভাগের নাম এক হবে না, নতুন নামকরণ করা হবে।’ এই ঘোষণার পরপরই ফুঁসে ওঠে কুমিল্লার বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

বিকেল ৫টায় নগরীর কুমিল্লা টাউন হলের প্রধান ফটকে ‘কুমিল্লা’ নামে বিভাগের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আরফানুল হক রিফাত, রোটা. দিলনাঁশি মোহসেন, বীরচন্দ্র নগর মিলনায়তনের সাধারণ সম্পাদক আবিদুর রহমান জাহাঙ্গীর, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম রতন, সাংবাদিক মাসুক আলতাফ চৌধুরী, অশোক বড়ুয়া, কাজী এনামুল হক, দেলোয়ার হোসেন জাকির, জাহিদুর রহমান প্রমুখ।

তারা কুমিল্লা বিভাগের পরিবর্তে অন্য কোনো নাম হলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন। পরে একটি বিক্ষোভ মিছিল নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

এ বিষয়ে সচেতন নাগরিক কমিটির কুমিল্লার সাবেক আহ্বায়ক বদরুল হুদা জেনু জানান, কুমিল্লার রাজনীতিবিদদের ঐক্য হীনতার সুযোগে হয়তো এটা করা হচ্ছে, কুমিল্লার ইতিহাসকে আড়াল করতে ও নিজেদের স্বার্থে একটি কুচক্রী মহল চেষ্টা চালাচ্ছে। ওই মহলটিই ময়নামতি নামে বিভাগ সমর্থন করছে।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের যেখানে বিভাগ করা হয়েছে, তা জেলার নামেই হয়েছে, এখন কুমিল্লা বিভাগ নিয়ে কারও ষড়যন্ত্র রয়েছে কিনা তা তিনি খতিয়ে দেখার দাবি জানান।

কুমিল্লা নাগরিক ফোরামের সভাপতি কামরুল আহসান বাবুল বলেন, ঐতিহাসিক ও ভৌগোলিকভাবে কুমিল্লা অত্যন্ত প্রসিদ্ধ একটি প্রাচীনতম জেলা। তাই বিভাগের নাম কুমিল্লা বিভাগ না হয়ে অন্য কোনো নাম হলে সচেতন কুমিল্লাবাসী তা কোনোভাবেই মেনে নেবে না। আমরা চাই দেশের অন্যান্য বিভাগের মতো এ বিভাগের নাম হবে, অন্যথায় ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়বে।

কুমিল্লা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক ও বাংলাদেশ কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মো. ওমর ফারুক বলেন, কুমিল্লা বিভাগের নাম কুমিল্লা বিভাগ হতে হবে, অন্য কোনো নাম আমরা কুমিল্লাবাসী গ্রহণ করবো না এবং বরদাস্ত করবো না।

এ ব্যাপারে কুচক্রী ও ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে সমস্ত কুমিল্লাবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রুখে দাঁড়াবার জন্য আহ্বান জানান তিনি। কুমিল্লার বিরুদ্ধে যারা ষড়যন্ত্র করছে তাদের চিহ্নিত করুণ, ঘৃণা করুণ এবং প্রতিহত করুণ।

এ রকম আর ও খবর



বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি  .  জাতীয়  .  স্বাস্থ্য  .  দেশ  .  লাইফস্টাইল  .  ফিচার  .  বিচিত্র  .  আন্তর্জাতিক  .  রাজনীতি  .  শিক্ষাঙ্গন  .  খেলাধুলা  .  আইন-অপরাধ  .  বিনোদন  .  অর্থনীতি  .  প্রবাস  .  ধর্ম-দর্শন  .  কৃষি  .  রাজধানী  .  শিরোনাম  .  চাকরি
Publisher :
Copyright@2014.Developed by
Back to Top