সোমবার, ২২ জানুয়ারী ২০১৮ ০৪:২৬:৪৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
বুধবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০১৭, ০৯:২৫:২৯
Zoom In Zoom Out No icon

রোনালদোকে কিংবদন্তি ভাবেন মেসিও

রোনালদোকে কিংবদন্তি ভাবেন মেসিও

শত্রু তাঁরা নন। কিন্তু বন্ধুত্বও তো নেই ওইভাবে। বরং একজনের সঙ্গে অন্যজনের প্রতিদ্বন্দ্বিতাটা এত বেশি, সংবাদমাধ্যম শত্রু হিসেবে দেখাতেই পছন্দ করে দুজনকে। লিওনেল মেসির মুখে তাই ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর প্রশংসা শোনা যায়নি খুব একটা। মেসিকে নিয়েও উচ্ছ্বসিত হয়ে কখনো কিছু বলেননি রোনালদোও। আর তাই এর ব্যতিক্রম কিছু হলে, সেটা খবর বৈকি!

এবারের খবরটা জন্ম দিয়েছেন মেসিই। ২০১৬ সালের ব্যালন ডি’অর ও ফিফার বর্ষসেরা পুরস্কার দুটিই জিতে নিয়েছেন রোনালদো, দুটিতেই মেসি দ্বিতীয়। তবে এ নিয়ে কোনো আক্ষেপ নেই বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকারের। ফুটবল সাময়িকী কোচ-এর সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে দুজনের সম্পর্কটা ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বলেছেন, ‘আমাদের দুজনের মধ্যে পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ আছে। আমি তাকে কিংবদন্তি এক খেলোয়াড় মনে করি, যার অসাধারণ সব অর্জন। কারণ ও আসলেই তা-ই।’
সর্বশেষ নয় বছরের ব্যালন ডি’অর ভাগাভাগি করে নিয়েছেন এ দুজন। মেসি পাঁচবার, চারবার রোনালদো। ভাবা যায়, একজন না থাকলে হয়তো অন্যজনই টানা নয়বার ব্যালন ডি’অর জিততেন! একে অন্যকে ছাড়িয়ে যাওয়ার এই নিরন্তর চেষ্টাই কি অনুপ্রাণিত করে তাঁদের? এই জায়গায় এসে অবশ্য মেসি বললেন অন্য কথা, ‘বার্সেলোনা ও আর্জেন্টিনার হয়ে আরও ভালো করার তাড়নাই আমার অনুপ্রেরণা। অন্য কিছু নয়।’
এ কারণেই নিজের সাফল্য নিয়েও কখনোই তৃপ্ত নন মেসি, ‘আমি ক্লাব ও দেশের হয়ে আরও ট্রফি জিততে চাই। এ জন্যই আমি কখনো আমার পেছনের সাফল্যগুলো দেখি না, শুধু সামনে তাকাই। যখন অবসর নেব, তখন হয়তো ফিরে তাকাব। তবে আপাতত শুধু সামনেই তাকাতে চাই।’

সূত্র: ফোর ফোর টু।

এ রকম আর ও খবর



বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি  .  জাতীয়  .  স্বাস্থ্য  .  দেশ  .  লাইফস্টাইল  .  ফিচার  .  বিচিত্র  .  আন্তর্জাতিক  .  রাজনীতি  .  শিক্ষাঙ্গন  .  খেলাধুলা  .  আইন-অপরাধ  .  বিনোদন  .  অর্থনীতি  .  প্রবাস  .  ধর্ম-দর্শন  .  কৃষি  .  রাজধানী  .  শিরোনাম  .  চাকরি
Publisher :
Copyright@2014.Developed by
Back to Top