বুধবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৭ ০৭:০৭:৩০ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, ০৯:৪৪:৫০
Zoom In Zoom Out No icon

খবরের কাগজের ঠোঙায় মোড়া খাবারকে আজই না করুন

খবরের কাগজের ঠোঙায় মোড়া খাবারকে আজই না করুন

বসার জায়গা না থাকলে কখনও পেতে বসে পড়লেন, কোথাও নোংরা থাকলে মুছে নিলেন, আবার প্রয়োজন হলে ঠোঙা বানিয়ে নিলেন দিব্যি। কোনও দরকারি জিনিস মুড়ে রাখতে বা বই খাতা মলাট দেওয়ার কাজেও এর জনপ্রিয়তা কিছু কম নয়। আবার প্রয়োজন না পড়লে বেচে দিয়ে কয়েক পয়সা রোজগারও করে নিতে পারেন। কীসের কথা বলছি বলুন তো? পুরনো খবরের কাগজের থেকে বেশি প্রয়োজনীয় আর কিছু আছে কি?

এর আগে বেশ কিছু গবেষণায় উঠে এসেছিল খবরের কাগজের ঠোঙায় রাখা খাবার শরীরের জন্য বিষাক্ত হতে পারে। এ বার সেই একই কথাই বলছে ফুড, সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ড অথরিটি অব ইন্ডিয়া (এফএসএসআই)। খবরের কাগজে ব্যবহার করা কালিতে থাকে একাধিক বায়োঅ্যাকটিভ পদার্থ। যা খবরের কাগজে মুড়ে রাখা বা ঠোঙায় রাখা খাবার সহজেই সংক্রমিত হয় ও শরীরের ওপর বিষাক্ত প্রভাব ফেলে। আবার এই কালিতে যে সলভেন্ট ব্যবহার করা হয় যা শরীরের জন্য কার্সিনোজেনিক হতে পারে।

এফএসএসআই প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, খবরের কাগজের ঠোঙায় খাবার রাখা খুবই অস্বাস্থ্যকর। পরিষ্কার, স্বাস্থ্যকর ভাবে রান্না করা হলেও খবরের কাগজে মুড়ে রাখলে খাবার থেকে বিষক্রিয়া হতে পারে। খবরের কাগজে প্রিন্টিং ইঙ্কে ব্যবহৃত রং, পিগমেন্ট, প্রিজারভেটিভ, রাসায়নিক, প্যাথজেনিক মাইক্রো অরগ্যানিজম পেটে গেলে বড়সড় শারীরিক সমস্যা হতে পারে। রিসাইকল করা কাগজ দিয়ে তৈরি কার্ডবোর্ড বাক্সে থাকা রাসায়নিক পেটে গেটে হজমের সমস্যা হতে পারে। এর ফলে যে কোনও বয়সেই ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ে।আনন্দবাজার পত্রিকা

এ রকম আর ও খবর



বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি  .  জাতীয়  .  স্বাস্থ্য  .  দেশ  .  লাইফস্টাইল  .  ফিচার  .  বিচিত্র  .  আন্তর্জাতিক  .  রাজনীতি  .  শিক্ষাঙ্গন  .  খেলাধুলা  .  আইন-অপরাধ  .  বিনোদন  .  অর্থনীতি  .  প্রবাস  .  ধর্ম-দর্শন  .  কৃষি  .  রাজধানী  .  শিরোনাম  .  চাকরি
Publisher :
Copyright@2014.Developed by
Back to Top