Nationnews24.com | Leading bangla online newsporlal in bangladesh.
নামাজের শেষ বৈঠকে রাসুল (সা.) কীভাবে বসতেন?
বৃহস্পতিবার, ১০ মে ২০১৮ ০৬:৩১ পূর্বাহ্ন
Nationnews24.com | Leading bangla online newsporlal in bangladesh.

Nationnews24.com | Leading bangla online newsporlal in bangladesh.

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দ‍র্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম প্রফেসর ড. আবু বকর মুহাম্মদ জাকারিয়া।

জুমাবারের বিশেষ আপনার জিজ্ঞাসার ৫৪৪তম পর্বে নামাজের শেষ বৈঠকে পায়ের অবস্থান কেমন হবে, সে সম্পর্কে জানতে চেয়ে রাজশাহী থেকে টেলিফোন করেছেন বাবুল হোসেন। অনুলিখনে ছিলেন জহুরা সুলতানা।

প্রশ্ন : আমরা যে নামাজের শেষ বৈঠকে বসি, সেখানে আমাদের ডান পা খাড়া থাকবে নাকি বিছানো থাকবে?

উত্তর : শেষ বৈঠকে পায়ের অবস্থান কী হবে, এ নিয়ে আলেমদের দুটি মত রয়েছে। আবু হানিফা (রা.) বলেন যে, ‘উভয় আবস্থাতেই পায়ের পাতার ওপর বসবেন।’ ইমাম মালেক (রা.) বলেন, ‘দুই রাকাত হোক বা চার রাকাত, সর্বঅবস্থায় পা একদিকে বের করে দিয়ে বসবেন।’ আর ইমাম শাফেয়ি (র.) বলেন, ‘যদি দুই রাকাতবিশিষ্ট সালাত হয়, অর্থাৎ যেখানে দ্বিতীয় রাকাতে সালাম আছে, সেখানে পা বিছিয়ে দিয়ে বসবেন, আর যেখানে দ্বিতীয় রাকাতে সালাম নেই, অর্থাৎ আবার উঠে যাবেন, সেখানে পায়ের পাতার ওপর বসবেন, পা বের করবেন না।’

হাদিস থেকে দেখা যায় রাসুল (সা.) সালাতের শেষ বৈঠকে, অর্থাৎ যে বৈঠকে সালাম ফিরিয়েছেন, ওই শেষ বৈঠকে তিনি পা বের করে দিয়ে নিতম্বের ওপর বসেছেন। আবার যে বৈঠকে তিনি সালাম ফেরান নাই, অর্থাৎ দ্বিতীয় রাকাতে, সেখানে তিনি বাঁ পা বিছিয়ে দিয়ে পায়ের ওপর বসেছেন।

তবে এ বিষয়ে আলেমরা বিভক্ত হয়েছেন। কেউ বলেছেন, রাসুল (সা.) শেষ জীবনে মোটা হয়ে গিয়েছিলেন, এ জন্য পা খাড়া করে বসতে কষ্ট হতো বলে তিনি পায়ের ওপর বসতেন। আর যে বৈঠকে তিনি অল্প সময়ের জন্য বসতেন, তখন তিনি পায়ের পাতার ওপর (পা খাড়া করে) বসতেন। রাসুলের (সা.) শারীরিক অবস্থার কারণে এটি একটি গ্রহণযোগ্য কারণ হতে পারে।

তবে যেহেতু সাহাবয়ে কেরাম রাসুল (সা.) সর্বশেষ যা করেছেন, সেটা গ্রহণ করতেন, সে হিসেবে সর্বশেষ যে আমল বর্ণিত হয়েছে, সেটা হচ্ছে চার রাকাত বা তিন রাকাত হলে, অর্থাৎ নামাজে দুটি বৈঠক থাকলে সর্বশেষ বৈঠকে পা বের করে দিয়ে নিতম্বের ওপর বসাটায় বেশিরভাগ আমল হয়েছে।

তবে এটা একটা সুন্নত পর্যায়ের আমল, তাই এ বিষয়ে আমাদের খেয়াল রাখতে হবে যেন আরেকজনের গায়ের ওপর ভর না পড়ে। বিশেষ করে আপনি যখন জামাতে নামাজ আদায় করবেন, তখন পা বের করে দিলে পাশের মানুষের গায়ে লাগতে পারে। তাই একটি সুন্নত পালন করতে গিয়ে আরেকটি সমস্যা যেন সৃষ্টি না হয়, সেদিকে আপনি খেয়াল রাখবেন। 

https://www.youtube.com/watch?time_continue=3&v=0aPY7-NFWWg